তিনি একা

কমল চক্রবর্তী

আলোয় হাঁটছেন বজ্র, বিদ্যুৎ-শতধা!
সে এক বিদীর্ণ আকাশ, ঝুঁকে দূরে রামধনু -রেখা!
হবে না নরের ব্রহ্ম!
নারী বাতায়ন খুলে রাখো!
আঁধার -কিংশুক গুলি গাঁথো দূর্বাদলে
ভাসাও অমিয়-তরণী।
তুমি শ্রেষ্ঠ, তুমি দ্বিজ, তুমি ব্রহ্মবাদিনী!
তোমার চোখের জলে লেলিহান, দাবানল
দুর্মর-অমর-বিদ্যাসাগর!

তুমি নারী, বিদ্যুৎ বালা
তুমি মারু বেহাগের প্রগাঢ়-পেয়ালা!
হে ঈশ্বর, হে পৃথিবীর রাজা
তুমি শুধু জানো
নারী, বহ্নি
নারী, বজ্র
নারী, দীপশিখা

শুধু তুমি জানো
নারী, ধূ ধূ মাঠ
নারী, ভুবন সম্রাট
নারী, ঈশ্বরের দীর্ঘ আয়ু রেখা।

তুমি প্রচার করেছ মর্তে
নারী দিব্য , পরম ঈশ্বরী
নারী, শক্তি, উর্বী, জগদ্ধাত্রী
নারী অহোরাত্রি, বিশ্ব প্রণেতা
নারী, গন্ধরাজ বিভা সমুজ্জ্বল পৃথা।

তুমি জানতে অক্ষরে হয়না মুক্তি
তাই দিকে দিকে বর্ণপরিচয়
তুমি, অসীম, অনন্ত, ব্রহ্ম
মুহূর্ত বিমুর্ত অ- আ – ক – খ
বালিকার জয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published.