তারার মতো উজ্জ্বল চোখ তার

ফারুক আহমেদ

একটি ধূসর গোধূলি বিকেল..
একটি সাদা বক উড়ে যায় নদীর তীরে- 
একটা গ্রামের ভিতর দিয়ে পথ হাঁটি,
এলোমেলো চুলে জানালায় মুখ রাখে বনলতার মতোই, মূল্যবান তারার মতো, উজ্জ্বল চোখ- 
কতদিন বাড়ি ফেরেনি যে নাবিক!
খোলা আকাশ থেকে তারা খসা দেখে দিন কাটে, রাত গভীর!
প্রকৃতির রূপ মায়াময় ভুবন জুড়ে,  
আঙুলের ছোঁয়া অপেক্ষা করে নরম ভিজে চাল ধোয়া হাত..
দিন সব ফুরালে- 
কত পাখি ঘরে ফেরে..

চোখ রাখি মনের আয়নায়..
পৃথিবীর অসুখ, 
বেঁচে আছি! 
ক্ষমা করে নি তারার মতো উজ্জ্বল চোখ.. 

কাছে টানে নি, 
নিখাদ আদর দিয়ে 
ভরিয়ে দেয়নি ললাটে চুম্বন..
অপেক্ষায় থাকে ভালবাসার আলিঙ্গন, 
কত পথ হাঁটার পর 
পথিক হতে পারিনি!
এতো দুঃখ বুকে– আকাশ রাখি..
তারা খসা আসমান থেকে- জ্বলজ্বল করা একটি নক্ষত্র
সন্ধানে প্রবেশ করি, 
রাতের বালিশ ভিজতে থাকে….

Leave a Reply

Your email address will not be published.