কালব্যাধি

অর্ঘ্য দত্ত



বাঁধ ভেঙে গেলে, স্বচ্ছ জলে ভেসে আসে শব ও পুরীষ
প্রতিবেশী-বন্ধুরও হাসিতে মিশে যায়
চতুর ব্যাধের লোভ এবং উল্লাস… 
কালব্যাধি এলে, ভাতের থালা কি হবে ভিক্ষাপাত্র ফের! 
পূজামন্ত্র বেজে উঠবে যাচকের সুরে?

সবুজের খোঁজে যারা বারবার পেরিয়ে যায় নতুন সীমানা
বাসা আর ভাষা ঘিরে মেলে দেয় ধূসর শিকড়…

তারা সব সানগ্লাস খুলে ফেল, চেয়ে দেখ দূর
উত্তর আকাশে জমেছে বারুদের  মেঘ



দলবাজ অন্ধকার এসেছে আবার
চিবচ্ছে, গিলছে আজ আলোর স্বভাব
যেভাবে অশথ চারা ইনোসেন্ট সেজে
কংক্রিট সমাজে চুপ শিকড় চালায়

ভেঙে যাবে ঝরে যাবে পলেস্তারা রঙ
ধর্মও নিয়েছে দেখো ছিন্নমস্তা সাজ

Leave a Reply

Your email address will not be published.