কার্পেট

সমরেশ মণ্ডল

শেষটুকু যখন বুঝে যাওয়া যায় তখন আর 
কোনও দ্বিধা থাকে না 
সমস্যা বলে তখন কিছুই হয় না 
কেবল উজ্জ্বল আলোর নির্দেশে 
আমাদের ঘরে আসন পাতে  বিলীয়মান কার্পেট 
যেন পারস্যের দিকে উড়ে যাবার আগে
গৃহস্থ সৌরভে থেমে ছিল,
বিশ্রামে নেমেছিল প্রধান গৃহে।

এ সব নতুন কিছু নয়
যখন এতো অবক্ষয় ধিক্কারে ধিক্কারে বিশ্রাম
নিতে ভুলে যাচ্ছে অক্ষর
তখন ধিক্কার শব্দে পৌঁছানোর আগে
চোখের সামনে এক বিলীয়মান
কার্পেটের কথা মনে আসে
যা আমার প্রধান ঘরেই শুধু পাতা নেই

ঘরে ঘরে প্রধান ঘরে বিছিয়ে আছে
আসলে আমরা সবাই সব জঞ্জাল ঝাঁট দিয়ে
আপাতত এই কার্পেটের তলায়

চাপা দিয়ে রাখতেই ভালবাসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.